এটিএম বুথ গ্যাস কাটার দিয়ে ভেঙে ১৩ লাখ রুপি চুরি

55

শুক্রবার ভোরে পূর্ব কলকাতার তিলজলায় গ্যাস কা’টা’র দিয়ে এটিএম বুথ ভেঙে ১৩ লাখ রুপি চুরির ঘটনা ঘটেছে। গ্যাস কা’টা’র দিয়ে এটিএম যন্ত্রটি কা’টার সময় আ’গু’ন ধরে যায় কাউন্টারে।

তবে স্থানীয় শ্যামপুকুর থানা পুলিশ জানিয়েছে, তাদের তৎপরতায় দু’ষ্কৃ’তকারীরা ভাঙতে পারেনি এটিএম। এর পেছনে হরিয়ানার কুখ্যাত এটিএম লু’টে’র বাহিনী আছে বলেই ধারণা পুলিশের। রাস্তার একটি সিসিটিভি ফুটেজে তিনজনকে দেখা গেছে। তার ভিত্তিতেই চলছে তদ’ন্ত।

পুলিশ জানিয়েছে, ভোরে তিলজলার সিএন রায় সড়কের একটি এটিএম থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে পুলিশের সন্দেহ হয়। দেখা যায়, এটিএম যন্ত্রে আ’গু’ন লেগেছে। খবর দেয়া হয় দমকলকে। দমকলের ইঞ্জিন এসে আ’গু’ন নেভায়।

খবর পেয়ে দুপুরে ওই বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান। তাদের দাবি, এটিএম যন্ত্রটি ভেঙে ১৩ লাখ রুপি নিয়ে গেছে দু’ষ্কৃ’তকারীরা।

জানা গেছে, তিন বা তার থেকে বেশি সংখ্যক দু’ষ্কৃ’তী একটি গাড়িতে করে ওই এটিএমে আসেন। ওই সময় এটিএম বুথে নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন না। প্রথমে মুখ ঢেকে ভেতরে ঢুকে তারা সিসিটিভি ক্যামেরা নষ্ট করে দেয়। এরপর গ্যাস কা’টা’রের সাহায্যে যন্ত্রটি কেটে ১৩ লাখ রুপি হা’তি’য়ে নেয় তারা।

একটি সিসিটিভিতে দেখা গেছে, তিন দু’ষ্কৃ’তী একটি গাড়িতে উঠছে। তাদের সঙ্গে রয়েছে গ্যাস কা’টা’র। ওই গাড়িটির সন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা, গ্যাস দিয়ে কা’টা’র সময়ই যন্ত্রে আ’গু’ন ধরে যায়।

গোয়েন্দা পুলিশের মতে, হরিয়ানার গ্যাস কা’টা’র বাহিনী সম্প্রতি কলকাতা ও তার আশপাশে হা’না দিতে শুরু করেছে। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যসহ ভারতের বিভিন্ন জায়গায় এটিএম লু’ট করেছে তারা।

২০১৬ সালে উত্তর কলকাতার সিঁথি এলাকায় একটি এটিএম ভাঙার চেষ্টা হয়েছিল। তখন উত্তর শহরতলীর গ্যাস কা’টা’র দিয়ে একটি এটিএম ভেঙে বেশ কয়েক লাখ রুপি লু’ট করে পা’লায় দু’ষ্কৃ’তীরা।

কিছুদিন আগে শহরতলীর এটিএমে হা’ম’লা চালায় তারা। এরপর ফের কলকাতার এটিএমে লু’ঠপা’টে সফল হলো এই বাহিনী। চার বছর আগে লালবাজারের গোয়েন্দারা এটিএম লু’টে’র বাহিনীর সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তিকে গ্রে’ফ’তা’র করে। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।