প্রতিদিনের খাবার তালিকায় শুকনো মরিচ রাখার প্রয়োজনীয়তা

128

তরকারি রান্নায় সাধারণত কাঁচা মরিচের পাশাপাশি শুকনো মরিচেরও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। মরিচ ছাড়া রান্না অসম্পূর্ণই থেকে যায় বাঙালি রান্নায়। তবে এ দুই ধরনের মরিচ আমরা খেলেও এর গুণাগুণ সম্পর্কে অনেকেই জানি না।

ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ এই সবজি শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ‘সি’র ঘাটতি দূর করে। এছাড়া বিভিন্ন রোগের প্রকোপ কমায়।

সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, কাঁচা মরিচের মতো শুকনো মরিচেরও রয়েছে অনেক গুণ। নিয়মিত শুকনো মরিচ খেলে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। আমেরিকান কলেজ অব কার্ডিওলজির জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়,

শুকনো মরিচ দিয়ে তৈরি যেকোনো খাবার খাওয়া শরীরের জন্য ভালো। গবেষকরা বলছেন, যেহেতু এটি শরীর ও স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ উপকারি তাই প্রতিদিনের খাবার তালিকায় শুকনো মরিচ রাখা উচিত।

এ সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশের আগে গবেষকরা ইতালিতে বসবাসকারী প্রায় ২৩ হাজার লোকের ওপর আট বছর ধরে একটি গবেষণা চালান। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা সপ্তাহে অন্তত চারবার শুকনো মরিচ খেয়েছেন তাদের হৃ’দরো’গে মা’রা যাওয়ার ঝুঁ’কি ৪০ শতাংশ এবং স্ট্রো’কে মা’রা যাওয়ার ঝুঁকি ৫০ শতাংশ কমে গেছে।

গবেষকরা বলছেন, স্বাস্থ্যকর নিরামিষ বা অন্য ধরনের খাবারের সঙ্গে শুকনো মরিচ খেলে স্বাস্থ্য বেশি সুরক্ষিত থাকবে।

শরীরের জন্য যে ৭ উপসর্গ ভ’য়’ঙ্কর বি’পদ সংকেত

সাধারণ অসুখকে অনেকেই অবহেলা করে ছোট করে দেখেন। শরীরে সাধারণত বড় কোনো অসুখের আগে নানা ভাবে সংকেত দেয়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, মানব দেহে এমন কিছু উপসর্গ আছে যা অবহেলা করা মোটেও ঠিক নয়।

আসুন জেনে নিই সেগুলো সম্পর্কে-

বুকে ব্য’থা: বুকে ব্য’থা’র বেশিরভাগ কারণই ক্ষ’তি’কর। জ্বা’লা’পো’ড়ো’র সঙ্গে বুকে ব্য’থা হলে সাধারণত গ্যাস্ট্রিকের স’ম’স্যা বোঝায়। তবে হৃ’দ’রো’গে’র কারণেও এটা হতে পারে। বুকে ব্য’থা’র সঙ্গে শ্বা’সক’ষ্ট, ঘাম, মাথা ঘোরা, অনিয়মিত হৃদস্পন্দন হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া জরুরি।

মাথা ব্য’থা: অনেকে মাথা ব্য’থা দূর করতে ব্য’থা’না’শ’ক ওষুধ খেয়ে নেন। কিন্তু সব সময় এ ধরনের ওষুধ খাওয়া মোটেও ঠিক নয়। অপর্যাপ্ত ঘুম, মা’ন’সি’ক চাপ কিংবা পুষ্টির ঘা’ট’তি হলেও মাথা ব্য’থা করে।

ওজন কমে যাওয়া: কোনো ধরনের চেষ্টা ছাড়াই কারও ওজন যদি একবারে অনেকটা কমে যায় তাহলে অবশ্যই তা চিন্তার বিষয়। সাধারণত ডায়াবেটিস, ক্যা’ন্সা’র, ভা’ই’রা’ল সং’ক্র’ম’ণ, হজমের রো’গ, হ’তা’শার কারণে এমন হতে পারে।

হজমের স’ম’স্যা : কারও যদি নিয়মিত হজমের স’ম’স্যা হয় তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

আঁচিল: বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আঁচিল কিংবা ছুলী ক্ষ’তি’কর নয়। তবে যদি এগুলো বড় হতে থাকে এবং এসবে কোনো ধরনের পরিবর্তন দেখা দেয় তাহলে অবশ্যই সতর্ক হতে হবে।

চুল পড়ে যাওয়া : কোনো মেয়ের যদি অতিরিক্ত চুল পড়ে টাক পড়ার মতো অবস্থা হয় তাহলে তা অস্বাভাবিক। সাধারণ পুষ্টির ঘাটতি, র’ক্ত’শূ’ন্য’তা কিংবা কোনো ধরণের অ’সু’খ হলে এমনটি হতে পারে।

নাক ডাকা: অতিরিক্ত নাক ডাকাও রো’গে’র ইঙ্গিত প্রকাশ করে।