প্রাকৃতিক যে পাঁচ উপায়ে অকালে চুল পাকা রোধ সম্ভব

455

অনেকেই আমাদের মধ্যে আছেন যাদের বয়সের আগেই চুল পেকে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। তবে এর পেছনেও রয়েছে যথাযথ কিছু কারণ। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, অকালে চুল পাকার পেছনে জিনগত প্রভাবের পাশাপাশি

অস্থিরতা, ধূমপান, দূষণ, মানসিক চাপ প্রভৃতি বিষয় কাজ করে। সেক্ষেত্রে বাজারে চলতি হেয়ার কালার ব্যবহার করে অনেকেই।

তবে এসব ক্যামিকেলযুক্ত হেয়ার কালারের রয়েছে মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। তাই আজকে আমরা জানবো এমন পাঁচটি প্রাকৃতিক উপায় যেগুলোর মাধ্যমে অল্প বয়েসে চুল পাকার সমস্যা থেকে খুব সহজেই মুক্তি পাওয়া যাবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো-

বাদাম

বাদাম চুলের জন্য খুবই উপকারী। সুন্দর চুল ধরে রাখতে বাদাম খাওয়ার পাশাপাশি বাদামের তেল চুলে লাগালে চুল স্বাস্থ্যজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

ছোলা

ছোলা বি১২ ও ফোলিক এসিডে ভরপুর। তাই সকালে খালি পেটে ছোলা খাওয়ার অভ্যাস স্বাস্থ্য ঠিক রাখার পাশাপাশি চুল কালো করার জন্যে যথেষ্ট উপাদেয়।

পেঁয়াজের ব্যবহার

পেঁয়াজ বাটা চুলের অকালে পেকে যাওয়া ঠেকাতে অত্যন্ত কার্যকরী উপাদান। পেঁয়াজ বেটে প্রতিদিন চুলের গোড়ায় মালিশ করুন। ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। অল্প কয়দিনের মধ্যেই পাকা চুলের সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে।

আমলকি

আমলকির গুঁড়ার সঙ্গে পাতিলেবুর রস মিশিয়ে প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট চুলের গোড়ায় মালিশ করুন। তারপর ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন। পাকা চুলের সমস্যায় দ্রুত উপকার পাবেন।