বর্ষায় বিপদ হতে পারে এই খাবারগুলো খেলে!

283

গত ১৫ই জুন আষাঢ়ের আগমনের মাধ্যমে শুরু হয়ে গেছে বর্ষাকাল। আর বর্ষাকাল মানেই হঠাৎ করেই ঝরঝরে বৃষ্টি, কখনো বা ভ্যাপসা গরম। গরম ও ঠান্ডার এই সময়টায় রোগবালাই বেশি দেখা দেয়। এ সমস্যা এড়াতে আমাদের বাড়তি সচেতনতা প্রয়োজন।

এ সময় খাবার গ্রহণে প্রয়োজন সতর্কতা। বর্ষায় খানিক অসতর্কতা দুর্দশার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষত বর্ষায় খাওয়া-দাওয়ার অসতর্কতায় স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বর্ষা মৌসুমে আমাদের রোগ

প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। তাই এ সময় স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে কিছু পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্ষাকালে পানিবাহিত রোগের আশঙ্কা খুব বেশি থাকে।

তাই বাইরের খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলাই ভালো। পুষ্টিবিদদের মতে, বর্ষাকালে মাছ কম পরিমাণে খাওয়াই ভালো। বিশেষ করে, সামুদ্রিক মাছ খাওয়ার সময়ে সতর্ক থাকতে হবে। বর্ষাকালে পেটের গন্ডগোল লেগেই থাকে।

এ সময় দুগ্ধজাত খাবার ঘনঘন না খাওয়াই ভালো। এ ছাড়া বর্ষাকালে প্রতিদিনের খাওয়ার পাতে দই রাখা ভালো না। কারণ, এতে ঠান্ডা লেগে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। বর্ষায় স্যালাড খাওয়ার সময়ও সতর্ক থাকতে হবে।

কাঁচা শাকসবজির মধ্যে এ সময় জীবাণুর সং’ক্র’মণ হয়। তাই কাঁচা শাকসবজিও এ সময় এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। বর্ষা মৌসুমে শরীর সুস্থ রাখতে মৌসুমি সবজি ও প্রচুর পরিমাণে ফল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা।

তারা বলছেন, শাকসবজি রান্না করে খাওয়াই ভালো। আপেল, জাম, লিচু, নাশপাতি–এসব মৌসুমি ফল খান। এ ছাড়া অবশ্যই খাদ্যতালিকায় রাখুন ওল, মিষ্টি আলু, গাঁঠি কচু, করলা ইত্যাদি সবজি।